অবৈধ ক্রিপটোকারেন্সি মাইনার সাইটগুলোকে ব্রাউজার থেকে ব্লক করুন এবং আপনার হার্ডওয়্যারকে বাঁচান!


আজকের এই ছোট আর্টিকেলটিকে কোন সাধারন আর্টিকেল না বলে সতর্কতামূলক আর্টিকেল বললে ভালো হয়। আপনি যদি টাইটেল দেখে কিছু না বুঝে থাকেন, তাহলে বুঝিয়ে বলি যে আমি আসলে কি বিষয়ে সতর্ক করছি বা কি বিষয়ে আলোচনা করছি। আমরা সবাই বিটকয়েন বা ক্রিপটোকারেন্সি এর বিষয়ে জানি এবং এটাও জানি যে বর্তমানে বিটকয়েন এবং এই ধরনের অন্যান্য ক্রিপটোকারেন্সি যেমন, ইথিরিয়াম বা ড্যাশকয়েন ইত্যাদির চাহিদা বর্তমানে অনেক বেশি এবং এগুলো অনেক বেশি এক্সপেনসিভ। পৃথিবীর সবাই সবাই (যারা এই বিষয়ে জানে) বর্তমানে নিজের কাছে কিছু বিটকয়েন বা অন্যান্য ক্রিপটোকারেন্সি রাখতে চায়। কেনই বা চাইবেনা? ভেবে দেখুন, এখন থেকে ১ বছর আগেও ১ বিটকয়েনের দাম ছিল ১ হাজার ডলারেরও কম। আর এখন মাত্র ১ বছর পরেই ১ বিটকয়েনের দাম ১৫ হাজার ডলারেরও বেশি। ঠিক এই কারণেই সবাই এখন বিটকয়েন কিনতে চায় বা মাইন করতে চায়। কারণ, অধিকাংশ মানুষেরই ধারণা এটার দাম ভবিষ্যতে আরও অনেক অনেক বেশি বেড়ে যাবে। যাইহোক, আসল কথায় আসি।

আজকে যা নিয়ে আলোচনা করবো সেটা বুঝতে হলে আগে আপনাকে দুটি বিষয় আগে থেকে জানতে হবে। তা হচ্ছে, বিটকয়েন বা ক্রিপটোকারেন্সি জিনিসটা কি এবং বিটকয়েন মাইনিং জিনিসটা কি। আপনি যদি আগে থেকেই এই দুটি বিষয়ে আগে থেকে ভালভাবেই জেনে থাকেন, তাহলে আপনি আজকের লেখাটি সহজেই বুঝবেন। আর যদি না জেনে থাকেন, তাহলে বিটকয়েন এবং ক্রিপটোকারেন্সি নিয়ে কভার করা আমাদের আগের দুটি আর্টিকেল পড়ে আসতে পারেন। আশা করি এই বিষয়ে মোটামোটি একটা ভালো ধারণা পাবেন।

বিটকয়েন কি? | কীভাবে উপার্জন করবেন? | কীভাবে খরচ করবেন? – বিস্তারিত

→ বিটকয়েন মাইনিং : উপযোগী নাকি সময়ের অপচয়?

এবার বলুন, আপনি বা আমি যদি বিটকয়েন কিনতে চাই বা মাইন করতে চাই তাহলে কি করবো? হয়ত কিছু বিটকয়েন কিনবো অথবা নিজের পিসি এবং হার্ডওয়্যারের প্রোসেসিং পাওয়ার ইউজ করে বিটকয়েন মাইনিং করবো। কিন্তু ইন্টারনেটে আমাদের থেকেও অনেক বেশি চালাক এবং বুদ্ধিমান মানুষ আছে। তারা কি করবে জানেন? তারা আপনার পিসির বা আপনার স্মার্টফোনের হার্ডওয়্যার এবং প্রোসেসিং পাওয়ার ইউজ করে নিজেরা ক্রিপটোকারেন্সি মাইনিং করবে, কিন্তু আপনি খুব বেশি বুদ্ধিমান মানুষ না হলে কিছুই বুঝতে পারবেন না। কিভাবে? তারা মূলত তাদের ওয়েবসাইটে একধরনের জাভা স্ক্রিপ্ট ইনক্লুড করে দিবে যেটা সারাক্ষন ভিজিটরদের হার্ডওয়্যার ব্যাবহার করে ক্রিপটোকারেন্সি মাইনিং করতে থাকবে। মানে, আপনি যখন তাদের ওয়েবসাইটটি ভিজিট করবেন, তখন তারা আপনি যে ডিভাইস দিয়ে ওয়েবসাইটটি ব্রাউজ করছেন ওই ডিভাইসটির হার্ডওয়্যার ব্যাবহার করে ক্রিপটোকারেন্সি মাইনিং করবে। এবং এটি অবশ্যই অবৈধ। কারণ, এটা তারা একধরনের চুরি করেই করছে। কারণ, তারা যে আপনার হার্ডওয়্যার ব্যাবহার করে মাইনিং করছে সেটা তারা আপনাকে জানাচ্ছে না বা আপনার পারমিশন চাচ্ছে না বা যেভাবেই হোক, সেটা আপনাকে জানতে দিচ্ছেনা।

আরো পড়ুন:  ডুয়াল বুট | এক কম্পিউটারে একাধিক অপারেটিং সিস্টেম?

ক্রিপটোকারেন্সি

এছাড়া আপনারা সবাই জানেন যে ক্রিপটোকারেন্সি মাইনিং করতে হলে শুধুমাত্র হাই এন্ড হার্ডওয়্যার ব্যাবহার করা উচিৎ এবং হাই এন্ড সিস্টেমে মাইনিং করলেও হার্ডওয়্যারে এর ওপরে যথেষ্ট চাপ পড়ে। বাজারে এভেইলেবল সবথেকে হাই এন্ড পিসিতেও যদি ক্রিপটোকারেন্সি মাইন করা হয়, সেটার ওপর অবিশ্বাস্যরকম চাপ পড়বে। আর আমরা সবাই হাই এন্ড সিস্টেম ব্যাবহার করিনা। তাই আপনার সাধারন পিসি বা স্মার্টফোন দিয়ে যদি এসব সাইটে ভিজিট করেন এবং তারা আপনার হার্ডওয়্যার ব্যাবহার করে ক্রিপটোকারেন্সি মাইন করা শুরু করে, তাহলে ধারণা করতেই পারছেন যে এর ফলে আপনার ডিভাইসের হার্ডওয়্যারের কি কি ক্ষতি হতে পারে। এসব ওয়েবসাইটে আপনি মনের অজান্তেও ভিজিট করলেও সবসময়ই আপনার ডিভাইসের সিপিইউ-জিপিউ সবকিছু ১০০% কার্যক্ষমতায় রান করতে থাকে যতক্ষন না পর্যন্ত আপনি সাইটটি থেকে বের হচ্ছেন। তাই এর ফলে আপনার হার্ডওয়্যারের মারাত্মক ক্ষতি হতে পারে। তাই এসব সাইটকে বা সাইটের মাইনিং প্রোসেসটিকে অবশ্যই ব্লক করা উচিৎ। আপনার যদি ইতোমধ্যে মানবতার ওপরে বিশ্বাস না উঠে গিয়ে থাকে, তাহলে চলুন জানা যাক,

ব্রাউজার কেন নিজে থেকেই করেনা?

আচ্ছা, এমনই যদি হয় তাহলে তো ইউজারদের স্বার্থে ব্রাউজারের নিজে থেকেই এদেরকে ব্লক করা উচিৎ। হ্যাঁ অবশ্যই করা উচিৎ এবং তারা ইতোমধ্যে এই বিষয়টি নিয়ে ভাবা শুরু করে দিয়েছে। কিন্তু ভিজিটরদের হার্ডওয়্যার ব্যাবহার করে ক্রিপটোকারেন্সি মাইনিং করার এই স্ক্রিপটটি নতুন। তাই সব ব্রাউজার এখনো তাদের ব্লক করে পেরে ওঠেনি। এছাড়া কোন কোন ওয়েবসাইট এভাবে অবৈধভাবে মাইনিং করে তাদের সবার নামও জানতে পারেনি ওয়েব ব্রাউজারের ডেভেলপাররা। কিন্তু এসব মাইনারদেরকে ব্লক করার জন্য তারা অবশ্যই নিজেরা কিছু ব্যাবস্থা নেবে। কিন্ত তা কবে নেবে বে কত দ্রুত নেবে এই বিষয়ে আমি কিছুই জানিনা। কিছু অ্যাড ব্লকার ইতোমধ্যেই এসব ওয়েবসাইটকে মাইনিং করা থেকে ব্লক করে দেয়, কিন্তু এটি বেস্ট সল্যুশন নয়। কারণ, ইন্টারনেট অ্যাডস এর ওপরে নির্ভরশীল। তাই এসব মাইনারদের ব্লক করতে গিয়ে সব ওয়েবসাইটের অ্যাডস ব্লক করা বা ইনকাম সোর্স বন্ধ করে দেওয়া নিশ্চই ভালো কথা নয়। তাহলে কি করবেন? কিভাবে ব্লক করবেন? অলরাইট, এবার শুনুন,

আরো পড়ুন:  ইন্টারনেট কুকিজ (Cookies) কি? | এর উপকারিতা এবং অপকারিতা

কিভাবে ব্লক করবেন?

এই ধরনের অবৈধ ক্রিপটোকারেন্সি মাইনারদের ব্লক করতে আপনি দুই ধরনের উপায়ে। প্রথমটি হচ্ছে এমন কোন অ্যান্টিভাইরাস বা ম্যালওয়্যার প্রোগ্রাম ব্যাবহার করা যেগুলো এসব মাইনারদের ব্লক করতে পারে এবং দ্বিতীয় পদ্ধতিটি হচ্ছে একটি ব্রাউজার এক্সটেনশন ব্যাবহার করা যেটি ব্রাউজারে এসব সাইটকে ব্লক করে দেবে। প্রথম পদ্ধতিটি পিসিতে সবসময় কাজ করবে, অর্থাৎ যেকোনো ব্রাউজার থেকেই এইসব ক্রিপটোকারেন্সি মাইনারদের ব্লক করবে এবং দ্বিতীয় পদ্ধতি অর্থাৎ, ব্রাউজার এক্সটেনশনটি শুধুমাত্র গুগল ক্রোম ব্রাউজারে কাজ করবে। প্রায় ৮০% পিসি ইউজারই গুগল ক্রোমকে ডিফল্ট ইন্টারনেট ব্রাউজার হিসেবে ব্যাবহার করে থাকেন। তাই তাদের জন্য এই ব্রাউজার এক্সটেনশনটি সবথেকে কাজের। কিন্তু প্রথম পদ্ধতিটি সবথেকে বেশি এফেক্টিভ। কিন্তু সেটার জন্য আপনাকে কিছুটা টাকা খরচ করতে হবে। সেটা যদি আপনি করতে না চান, আর যদি সবসময় গুগল ক্রোম ব্যাবহার করেন, তাহলে আমি বলব আপনার জন্য ব্রাউজার এক্সটেনশন ব্যাবহার করাই ভালো।

আপনি যদি প্রথম পদ্ধতিতে করতে চান, তাহলে আপনাকে শুধুমাত্র Malwarebites নামের এই অ্যান্টিম্যালওয়্যার প্রোগ্রামটির প্রিমিয়াম ভার্শন পিসিতে ইন্সটল করে রাখতে হবে। কারণ, আমার জানামতে, বর্তমানে Malwarebites ই এসব ক্রিপটোকারেন্সি মাইনার ওয়েবসাইটগুলো থেকে ১০০% সুরক্ষা প্রদান করে। এই প্রোগ্রামটির প্রিমিয়াম ভার্শন ব্যাবহার করতে হলে প্রত্যেক বছরের জন্য ২০ ডলার খরচ করতে হবে আপনাকে। আপনি না চাইলে এটি ব্যাবহার নাও করতে পারেন, কিন্তু আপনার যদি প্রাইসিং নিয়ে কোন সমস্যা না থাকে, তাহলে আপনার জন্য এটার প্রিমিয়াম ভার্শন ব্যাবহার করাই সবথেকে ভালো হবে। কারণ, এটি মাইনারদের ব্লক করা ছাড়াও আপনাকে অন্যান্য অনেক ম্যালওয়্যার থেকেও সুরক্ষা প্রদান করবে।

ক্রিপটোকারেন্সি

আর, আপনি যদি সবসময় গুগল ক্রোম ব্যাবহার করেন, তাহলে আপনি গুগল ক্রোমের জন্য No coin এক্সটেনশনটি ইন্সটল করে নিতে পারে। তাহলেই আপনাকে আর এসব অবৈধ ক্রিপটোকারেন্সি মাইনারদের নিয়ে চিন্তা করতে হবেনা। কিন্তু মনে রাখবেন, এই এক্সটেনশনটি শুধুমাত্র গুগল ক্রোমের ভেতরেই কাজ করবে। তবে এই দুটি প্রোগ্রাম এবং এক্সটেনশনের ক্রিপটোকারেন্সি মাইনারদের আটকানোর পদ্ধতি একই। এগুলো মূলত আপনি কোন ওয়েবসাইট ভিজিট করার সময় সেই ওয়েবসাইটটি যদি ক্রিপটোমাইনিং করার এমন কোন স্ক্রিপ্ট রান করার চেষ্টা করে, তবে সেই স্ক্রিপ্টটিকে সাথে সাথে ব্লক করে দেয়। যার ফলে, তারা আর আপনার হার্ডওয়্যার ইউজ করে ক্রিপটোমাইনিং করতে পারেনা।

আরো পড়ুন:  সিডি, ডিভিডি, ব্লু-রে ডিস্ক? প্ল্যাস্টিকের চাকাতে ডিজিটাল ডাটা?

ক্রিপটোকারেন্সি

ডাউনলোড → MalwareBites 

ডাউনলোড → No Coin Extention for Google Chrome


আজকের মত এখানেই শেষ করছি। আশা করি আজকের আর্টিকেলটি আপনাদের ভালো লেগেছে। কোন ধরনের প্রশ্ন বা মতামত থাকলে অবশ্যই কমেন্ট সেকশনে জানাবেন।

Image Credit : 3Dman_eu Via Pixabay, Quincemedia Via Pixabay 

label, , ,

About the author

আমি সিয়াম। পুরো নাম বলতে হলে, সিয়াম রউফ একান্ত। অনেক ছোটবেলা থেকেই প্রযুক্তির প্রতি আকর্ষণ এবং প্রযুক্তিকে ভালোবাসি। লাইফে টেকনোলজি আমাকে যতটা ইম্প্রেস করেছে ততটা অন্যকিছু কখনো করতে পারেনি। তাই পড়াশোনার পাশাপাশি প্রায় অধিকাংশ সময়ই প্রযুক্তি নিয়ে পড়ে থাকি। আশা করি এখানে আপনাদেরকে প্রযুক্তি বিষয়ক ভালো কিছু আর্টিকেল উপহার দিতে পারব।

38 Comments

  1. Billal December 22, 2017 Reply
    • সিয়াম একান্তAuthor December 22, 2017 Reply
  2. Lucky Khanl December 22, 2017 Reply
    • সিয়াম একান্তAuthor December 22, 2017 Reply
  3. Golam sarowaar December 22, 2017 Reply
    • সিয়াম একান্তAuthor December 22, 2017 Reply
  4. Farid k December 22, 2017 Reply
  5. সিয়াম একান্তAuthor December 23, 2017 Reply
  6. sahajahan alam bijoy December 23, 2017 Reply
    • সিয়াম একান্তAuthor December 23, 2017 Reply
  7. Sihab December 23, 2017 Reply
    • সিয়াম একান্তAuthor December 23, 2017 Reply
  8. হেমন্ত কুমার December 23, 2017 Reply
    • তুলিন December 23, 2017 Reply
    • সিয়াম একান্তAuthor December 23, 2017 Reply
  9. তুলিন December 23, 2017 Reply
    • সিয়াম একান্তAuthor December 23, 2017 Reply
  10. Basirul Fahad December 23, 2017 Reply
    • সিয়াম একান্তAuthor December 23, 2017 Reply
  11. Basirul Fahad December 23, 2017 Reply
    • সিয়াম একান্তAuthor December 23, 2017 Reply
  12. Moynul islam December 23, 2017 Reply
    • সিয়াম একান্তAuthor December 23, 2017 Reply
  13. Shadiqul Islam Rupos December 23, 2017 Reply
    • সিয়াম একান্তAuthor December 23, 2017 Reply
  14. Saif najim December 23, 2017 Reply
    • সিয়াম একান্তAuthor December 23, 2017 Reply
  15. Byzid Bostami December 23, 2017 Reply
    • সিয়াম একান্তAuthor December 23, 2017 Reply
  16. Pothik nAbi December 23, 2017 Reply
    • সিয়াম একান্তAuthor December 23, 2017 Reply
  17. Tipu December 23, 2017 Reply
    • সিয়াম একান্তAuthor December 23, 2017 Reply
  18. Suvash December 23, 2017 Reply
    • সিয়াম একান্তAuthor December 23, 2017 Reply
  19. তন্ময় December 23, 2017 Reply
  20. Salam Ratul December 30, 2017 Reply

Add a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *