টেকহাবস
ডিএলএল ফাইল কি? কেন এতো গুরুত্বপূর্ণ? কখনো .dll ফাইল ডাউনলোড করবেন না!

ডিএলএল ফাইল কি? কেন এতো গুরুত্বপূর্ণ? কখনো .dll ফাইল ডাউনলোড করবেন না!

সাধারণ কম্পিউটার ইউজারদের কথা না হয় বাদই রাখলাম, তবে যারা গেমিং করেন বিশেষ করে, তারা জীবনে একবার হলেও এই ম্যাসেজ দেখে থাকবেন নিশ্চয়, “অমুক ডিএলএল ফাইল নট ফাউন্ড” কিংবা “তমুক ডিএলএল এরর” — তারপরে নিশ্চয় গুগল করতে আরম্ভ করে দেন, আর বিভিন্ন সাইট থেকে মিসিং হওয়া ডিএলএল ফাইল ডাউনলোড করে নির্দিষ্ট ফোল্ডারে এনে বসিয়ে দেন, ব্যাস  ডিএলএল এরর খতম! বাহ কতো মিষ্টি সলিউশন তাই না? থামুন, আগে ডিএলএল সম্পর্কে বিস্তারিত জেনে নিন, আর অনলাইন থেকে যেকোনো .dll ফাইল ডাউনলোড করার আগে এই আর্টিকেলটি মুখস্ত করে রাখুন।

ডিএলএল ফাইল কি?

অনেকে হয়তো ভাবছেন, আজকে এই সিঙ্গেল এক ফাইল এক্সটেনশনের পেছনে কেন লাগলাম, দেখুন সহজ কথায় যদি বলি তো উইন্ডোজ কম্পিউটারের ক্ষেত্রে .dll এবং .exe অনেকটা একই জিনিষ। এখন আপনি নিজেই চিন্তা করে দেখুন, .exe ফাইল গুলো আপনার কম্পিউটারে কি করে, তাহলে সহজেই ধারণা পেয়ে যাবেন, .dll ফাইল গুলোর কাজ কি হতে পারে। অনেকেই জানেন, কোন ডিএলএল ফাইল মিসিং হয়ে গেলে কোন সফটওয়্যারই আর কাজ করে না, আসলে ডিএলএল এর সম্পূর্ণ অর্থ হচ্ছে, ডাইন্যামিক লিঙ্ক লাইব্রেরী (Dynamic-Link Library) — আর এটি মাইক্রোসফটের একটি নিজস্ব বাস্তবায়ন। যদিও এটি অনেকটাই .exe ফাইলের মতো কিন্তু .dll এক্সিকিউটেবল ফাইল হয় না। মূলত এই ফাইলটি কোন প্রোগ্রাম কোন সময়ে কি করবে তার একটি আদেশ মালা ধারণ করে থাকে।

ডিএলএল ফাইল কি?

.dll ফাইল গুলো কোন প্রোগ্রামে আলাদা ফাংশনালিটি যুক্ত করে দেয়, আর এখানে সবচাইতে বড় সুবিধার ব্যাপার হচ্ছে, আপনাকে মূল প্রোগ্রামটি এডিট করার কোন প্রয়োজনই পড়বে না। কোন ড্রাইভে কতোটুকু স্পেস ফাঁকা রয়েছে বা যেকোনো ফাইলকে নির্দিষ্ট ডিরেক্টরি থেকে খুঁজে বেড় করা বা প্রিন্টিং কম্যান্ড দেওয়ার জন্য অনেক প্রোগ্রাম একই প্রায় একই টাইপের ডিএলএল ফাইল ব্যবহার করে থাকে। আবার অনেক ডিএলএল ফাইল সরাসরি .exe ফরম্যাটেই দেখতে পাওয়া যায়। ধরুন, ডেভেলপার কোন সফটওয়্যারে নতুন ফাংশন যুক্ত করার বা আপগ্রেড করার প্ল্যান করলেন, সেক্ষেত্রে তাদের অবশ্যই অ্যাপ্লিকেশনটি নতুন করে মডিফাই বা নতুন করে কম্পাইল করতে হবে। কিন্তু ডিএলএল যুক্ত করে দেওয়ার মাধ্যমে ডেভেলপারদের আলাদা কোন ঝামেলা পোহানোরই দরকার পরে না। এমনকি একই ডিএলএল ফাইল আলাদা আলাদা অ্যাপ্লিকেশনেও ব্যবহার করা যেতে পারে। .dll ফাইলও .exe ফাইলের মতো কোড, ডাটা, এবং রিসোর্স ধারণ করে।

কেন কখনো .dll ফাইল ডাউনলোড করবেন না!

অনেকেই “অমুক ডিএলএল ফাইল নট ফাউন্ড” কিংবা “তমুক ডিএলএল এরর” ম্যাসেজ দেখার পরে গুগল সার্চ করে বিভিন্ন সাইট থেকে .dll ফাইল দিয়ে প্রবলেম ফিক্স করার চেষ্টা করেন, আবার অনেক সময় প্রবলেম সত্যিই ফিক্স হয়ে যায়। তবে আমি আপনাকে বলছি, কখনোই আলাদা সাইট থেকে এই .dll ফাইল গুলোকে ডাউনলোড করে আপনার সিস্টেমে বসাবেন না। ওয়েল, আমি কেন এমনটা বলছি তা নিচে বর্ণনাও করছি।

১/ .dll ডাউনলোড সাইট গুলো আন-অফিশিয়াল হয়ে থাকেঃ — বেশিরভাগ .dll ফাইল গুলোকে মাইক্রোসফট নিজেই তৈরি করে, সেগুলো উইন্ডোজেই থাকে, অথবা নির্দিষ্ট সফটওয়্যার ডেভেলপার’রা তাদের প্রোগ্রামের জন্য .dll ফাইল গুলোকে তৈরি করে থাকে। আপনি যখন যেকোনো সাইট থেকে সেগুলোকে ডাউনলোড করেন, এখানে কোনই গ্যারেন্টি নেই যে সেগুলো অফিশিয়াল ভার্সন, হতে পারে সেগুলো পুরাতন বা আগের ভার্সন কিংবা মডিফাই করা ভার্সন।

২/ শুধু .dll ফাইল রিপ্লেস করেই সবসময় প্রবলেম ফিক্স হয়নাঃ — সম্পূর্ণ সফটওয়্যার বা গেমে ডিএলএল এরর কেবল একটি সিঙ্গেল এরর মাত্র। যেহেতু সফটওয়্যার আগে এই ফাইলই লোড করতে শুরু করে, তাই সফটওয়্যার ওপেন করার সময় আগে এই এররই দেখতে পাওয়া যায়। কিন্তু এটা হতেই পারে সফটওয়্যারে আরো ত্রুটি রয়েছে। আপনি হয়তো ডাউনলোড করে একটি ফাইল বসিয়ে দিলেন, কিন্তু হয়তো আরেক ফাইল মিসিং এরর দেখাতে পারে কিংবা যেকোনো আলাদা এরর ম্যাসেজ দেখাতে পারে। তাই এই ফাইল গুলো কেবল অফিশিয়াল সাইট থেকেই ডাউনলোড করা উচিৎ, যদি অফিশিয়াল সাইটে না থাকে, আপনি ডেভেলপারদের কন্টাক্ট করে ফাইল রিকোয়েস্ট করতে পারেন, এতে সবসময় লেটেস্ট ভার্সন পেতে পাড়বেন। অনেক সময় কিছু ডিএলএল মিসিং এর ক্ষেত্রে ঐ ফাইল ঐ সফটওয়্যার ডেভেলপারের কাছে থাকে না, কেনোনা আগেই বললাম, অনেক .dll ফাইল একাধিক অ্যাপ্লিকেশনের মধ্যে শেয়ার করা থাকে। এখন যদি কোন গেমে ডিরেক্টএক্স এর জন্য ডিএলএল মিসিং দেখায়, তাহলে ঐ গেম ডেভেলপারের কিছুই করার নেই, আপনাকে মাইক্রোসফট ডিরেক্টএক্স প্যাকেজ রি-ইন্সটল করতে হবে, অথবা মাইক্রোসফট ওয়েবসাইট চেক করতে হবে।

আরো পড়ুন:  হার্ড ডিস্ক পার্টিশন কি? কেন প্রয়োজনীয়? - বিস্তারিত

৩/ আলাদা সাইটের ডিএলএল ফাইল গুলো ব্যাকডেট এবং ভাইরাস দ্বারা আক্রান্ত হতে পারেঃ — .dll সহজেই অনলাইন অনেক সাইট থেকে খুঁজে পেতে পাড়বেন, কিন্তু তারা ডেভেলপার সাইট থেকেই সেগুলোকে ডাউনলোড করে রাখে কিংবা যেকোনো আলাদা সোর্স থেকে বেড় করে, আর একবার বেড় করেই রেখে দেই, তারা প্রতিদিন প্রত্যেকটা ফাইলের আপডেট খুঁজে বেড় করতে যায় না, আর এজন্যই বেশির সময় ডাউনলোড করা .dll ফাইল গুলো ব্যাকডেটেড হয়ে থাকে। আর পুরাতন ফাইলে আপনি অনেক ফাংশন মিস করতে পারেন, তাছাড়া যেহেতু আপনি এপ্রুভ পাওয়া .dll ডাউনলোড করছেন না, এতে কোনই নিশ্চয়তা নেই আপনার ফাইলটি মডিফাই করে ভাইরাস দ্বারা আক্রান্ত করানো নয়। যদি ভালো অ্যান্টিভাইরাস ইন্সটল করা থাকে, সেক্ষেত্রে সহজেই ম্যালিসিয়াস .dll ফাইল গুলোকে ডিটেক্ট করতে পাড়বেন।

.dll ফাইল গুলো প্রত্যেকটি সফটওয়্যারের একেকটি ছোট ছোট অংশ, যেগুলো যেগুলো আলাদা আলাদা ফাংশন অপারেট করতে পারে, তো যদি ম্যালিসিয়াস কোন .dll ফাইল আপনার সিস্টেমে ইঞ্জেক্ট করানো হয়, সেক্ষেত্রে সহজেই হ্যাকার ম্যালিসিয়াস কাজ করাতে পাড়বে আপনার সিস্টেমে। তাই যেকোনো সাইট থেকে একেবারেই এই ফাইল ডাউনলোড করা চলবে না। এটা আপনার সিস্টেমের জন্য বিরাট রিস্কে পরিনত হতে পারে।

তাহলে কিভাবে ডিএলএল এরর ফিক্স করবেন?

এখন আপনি হয়তো বলবেন, “হ্যাঁ, বুঝলাম, আলাদা সাইট থেকে ডিএলএল ডাউনলোড করা অনেক রিস্কের ব্যাপার, ব্যাট তাহলে এই সমস্যা ফিক্স কিভাবে করবো ভাই?” — ওয়েল, প্রথমে বলে রাখি, সবসময় কিন্তু শুধু .dll ফাইলের জন্যই সমস্যা দেখা দেয় না, আরো অনেক কারণ থাকতে পারে, আর এই কারণ খুঁজে বেড় করার জন্য ট্র্যাবলশুটিং করতে হবে। আপনি এই আর্টিকেলটি থেকে কোন সফটওয়্যার কেন রান করতে পাড়ছে না বা কেন ক্র্যাশ করছে, সেটা সহজেই বুঝতে পাড়বেন। তো প্রথমে পূর্বে সঠিক সমস্যা খুঁজে বেড় করার চেষ্টা করুণ, হতে পারে মিসিং ডিএলএল ফাইল কোন সমসসাই নয়, সমস্যা অন্য কোথাও।

এখন যদি আপনার সমস্যা মিসিং .dll ফাইলের জন্যই হয়ে থাকে, সেক্ষেত্রে আপনি নিচে কমেন্ট করে আমাকে জানাতে পারেন এবং আমি খুবই দ্রুত সম্ভাব্য সকল সমস্যা গুলো নিয়ে একটি আর্টিকেল লিখে ফেলবো। আর আপনি যদি অফিশিয়াল সাইট থেকে মিসিং ফাইলটি খুঁজে পান, তো সেটা ব্যবহার করতে পারেন। অথবা, কমেন্ট সেকশন, ইমেইল, সোশ্যাল মিডিয়া —যেকোনো উপায়ে আপনি আমার সাথে যোগাযোগ করতে পারেন, আমি সমস্যা সমাধান করার চেষ্টা করবো।


ডিএলএল ফাইল গুলো সত্যিই অনেক কাজের, এগুলো বিভিন্ন সফটওয়্যারের মধ্যে মডিউল তৈরি করে, যার মাধ্যমে আলাদা ফাংশন সফটওয়্যারে অ্যাড এবং রিমুভ করা যেতে পারে। আর এই আর্টিকেল থেকে জনাতে পারলেন, কেন যেকোনো আলাদা সাইট থেকে .dll ফাইল ডাউনলোড করা ক্ষতিকর। আশা করছি, আর্টিকেলটি আপনার জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ হিসেবে প্রমানিত হয়েছে, আর যেকোনো প্রশ্নের জন্য আমাকে তো নিচে কমেন্ট করতেই পাড়বেন!

ইমেজ ক্রেডিটঃ By Profit_Image Via Shutterstock

তাহমিদ বোরহান

প্রযুক্তির জটিল টার্মগুলো কি আপনাকে বিভ্রান্ত করছে? কিছুতেই কি আপনার মস্তিষ্কে পাল্লা পড়ছে না? তাহলে বন্ধু, আপনি এবার সঠিক জায়গায় এসেছেন—কেনোনা এখানে আমি প্রযুক্তির সকল জটিল বিষয় গুলো ভাঙ্গিয়ে সহজ পানির মতো উপস্থাপন করার চেষ্টা করি, যাতে সকলে সহজেই সকল টেক টার্ম গুলো বুঝতে পারে।

3 comments

সাপোর্ট কমিউনিটি

হাজারো মেম্বারের ফেসবুক সাপোর্ট কমিউনিটি পরিবার থেকে যেকোনো টেক সমস্যার সমাধান পান নিমিষের মধ্যেই!

ইউটিউবে টেকহাবস

টেকহাবস ব্লগের টেক আর্টিকেল গুলো পড়তে ভালো লাগে? তাহলে নিশ্চিত করে বলতে পারি, টেকহাবস টিভি ইউটিউব চ্যানেলের টেক ভিডিও গুলোও ভালো লাগবে!

সামাজিক মাধ্যম

সোশ্যাল মিডিয়া গুলোতে টেকহাবসের সাথে যুক্ত হয়ে সকল আপডেট গুলো সবার আগে পান!