টেকহাবস
স্মার্ট প্লাগ কি?

স্মার্ট প্লাগ কি? স্মার্ট হোমের ক্ষেত্রে স্মার্ট প্লাগের গুরুত্ব কতোটুকু?

স্মার্ট হোম সম্পূর্ণ করতে স্মার্ট প্লাগ অনেক গুরুত্বপূর্ণ একটি ডিভাইজ। এটি সাধারণ প্লাগের মতোই ইলেকট্রিক কারেন্ট আউটপুট দেওয়ার কাজে ব্যবহৃত হয়ে থাকে, কিন্তু স্মার্ট প্লাগ ফোনের আপ দ্বারা নিয়ন্ত্রিত করা যায়, আর এখানেই চলে আসে বিরাট পার্থক্য, কেননা আপনি প্লাগটিকে রিমোট লোকেশন থেকে কন্ট্রোল করতে পারবেন সাথে ভয়েস এসিস্ট্যান্ট দ্বারা ও কমান্ড প্রদান করে নিয়ন্ত্রণ করতে পারবেন। স্মার্ট প্লাগের সাথে আপনার যেকোনো সাধারণ ইলেকট্রিক আপ্লায়েন্স ও স্মার্ট হোম রেডি হয়ে যেতে পারবে। চিন্তা করে দেখুন, আপনার সাধারণ টেবিল ল্যাম্প বা ইস্ত্রীর কথা, আপনি স্মার্টফোনের আপ ব্যাবহার করে সেগুলোকে অন বা অফ করতে সক্ষম হবেন। আবার নানান মডেলের প্লাগে নানান টাইপের ইউনিক ফিচার পেয়ে যাবেন, যেমন অনেক প্লাগ সিডিউল অন অফ সমর্থন করে, এর মানে রাতের নির্দিষ্ট সময়ে বাতি স্বয়ংক্রিয় জ্বলে উঠবে আবার নির্দিষ্ট সময় পরে বাতি স্বয়ংক্রিয় নিভে যাবে।

স্মার্ট প্লাগ কেনার সময় বেস্ট হবে যদি প্লাগটি সরাসরি ওয়াইফাই রাউটারের সাথে কানেক্ট হওয়ার ক্ষমতা রাখে, তবে অনেক প্লাগ ওয়াইফাই ডঙ্গল বা ব্রিজ ব্যাবহার করেও কানেক্ট হতে পারে।

স্মার্ট প্লাগের সুবিধা

স্মার্ট প্লাগ অগুনতি সুবিধা প্রদান করতে পারে, বলতে পারেন অনেক নন-স্মার্ট ডিভাইজ গুলোকে স্মার্ট হোম রেডি ডিভাইজ বানিয়ে দিতে সক্ষম হতে পারে। এটি যেহেতু ওয়াইফাই ব্যাবহার করে রাউটারের সাথে কানেক্ট হতে পারে তাই স্মার্টফোন বা ভয়েজ এসিস্ট্যান্ট এর সাথে সহজেই কানেক্ট করা যেতে পারে। সাথে সহজেই নেটওয়ার্ক কনফিগ করার মাধ্যমে রিমোট লোকেশন থেকেও যেকোনো কানেক্টেড ডিভাইজ অন বা অফ করতে পারবেন। সাথে সহজেই ট্র্যাক করতে পারবেন কোন কোন ডিভাইজ আপনার প্লাগের সাথে কানেক্টেড রয়েছে, কোন ডিভাইজ কতক্ষণ চলেছে তার সময় ও মনিটর করতে পারবেন এতে সহজেই মাসের শেষে বিদ্যুৎ বিলের উপর নিয়ন্ত্রণ রাখতে পারবেন।

চিন্তা করে দেখুন আপনি কাপড়ের উপর ইস্ত্রী বসিয়ে ভুল করে বাইরে চলে এসেছেন, সেক্ষেত্রে রিমোট ভাবে ইস্ত্রী অন বা অফ আপনার লাইফ সেভার হিসেবে কাজ করতে পারে, এতে বিরাট বড় বৈদ্যুতিক দুর্ঘটনা এড়ানো যেতে পারে। আপনি ফোনের ভয়েজ এসিস্ট্যান্ট আপ বা স্মার্ট স্পিকার যেমন- আলেক্সা, সিরি, বা গুগল এসিস্ট্যান্ট ব্যাবহার করে ভয়েজ কমান্ড ব্যাবহার করে যেকোনো কানেক্টেড থাকা ডিভাইজ নিয়ন্ত্রণ করতে পারবেন, যদি স্মার্ট প্লাগটি পিসির জন্য সাপোর্ট রাখে সেক্ষেত্রে কম্পিউটার ব্যাবহার করে বা উইন্ডোজ পিসির কর্টানার মাধ্যমে কমান্ড দিয়ে প্লাগটি নিয়ন্ত্রণ করা যাবে।

সিডিউল অন অফ ফিচার থাকায় বাড়ির বা অফিসের ইলেকট্রিক আপ্লায়েন্স গুলো স্বয়ংক্রিয় চালু বা বন্ধ হতে পারবে, যদিও বিষয় গুলো অনেকটা কল্পনার মতো কিন্তু স্মার্ট প্লাগ ব্যাবহার করার মাধ্যমে সব কিছুই সম্ভব হতে পারে। আপনার বাসাতে বর্তমানে লাগানো থাকা সাধারণ প্লাগ এবং স্মার্ট প্লাগে একই স্ট্যান্ডার্ড ব্যাবহার করা হয়েছে, ফলে আপনি কোনো প্রকার সমস্যা ছাড়াই স্মার্ট প্লাগ ইনস্টল করে ব্যাবহার করতে পারবেন, সাথে এর অটো শাট ডাউন ফিচার থাকার ফলে অনেক দুর্ঘটনা এড়ানো সম্ভব হয়।

যদি বলি দামের কথা, সেক্ষেত্রে এক একটি ওয়াইফাই সমর্থিত প্লাগ ২৫ ডলার থেকে ৫০ ডলার পর্যন্ত চার্জ করতে পারে। তবে যে প্লাগ গুলো বিশেষ করে বাহির থেকে নিয়ন্ত্রণ করা যায়, সেই মডেল গুলোর দাম বেশি লেগে যেতে পারে। নিঃসন্দেহে স্মার্ট হোমের জন্য স্মার্ট প্লাগ অত্যন্ত আদর্শ একটি সলিউশন, তবে স্মার্ট প্লাগ নির্মাতা কোম্পানীদের রেকমেন্ডেশন অনুসারে সরাসরি যেকোনো ডিভাইজ প্লাগে লাগিয়ে ব্যাবহার করার কথা বলা হয়, আলাদা এক্সটেনশন পাওয়ার ক্যাবল ব্যাবহার করার কথা নিষেধ করা থাকে। তবে আমার মতে এক্সটেনশন ক্যাবল বা প্লাগ স্প্লিটার ব্যাবহার করলে তেমন কোন সমস্যা হবে না, তবে আপনি যদি নির্দিষ্ট করে একটি ডিভাইজ কন্ট্রোল করতে চান সেক্ষেত্রে ডিভাইজটি সরাসরি স্মার্ট প্লাগে লাগানোই বেস্ট হবে!


স্মার্ট প্লাগকে ওয়াইফাই স্মার্ট প্লাগ ও বলা হয়ে থাকে, আর এটা প্রত্যেকটা হোম ডিভাইজের ক্ষেত্রে আদর্শ। বিশেষ করে কিচেনওয়্যার গুলোর ক্ষেত্রে, যেমন আপনার কফি মেকারকে স্মার্ট কফি মেকার বানিয়ে ফেলতে পারবেন বা ইলেক্ট্রিক চায়ের কেটলিকে চা বয়েল করার পরে সহজেই অফ করে দিতে পারবেন, সত্যি বলতে যা ইচ্ছা তা কানেক্ট করতে পারবেন এবং সেগুলোকে স্মার্টফোন দ্বারা নিয়ন্ত্রণ করতে পারবেন।

আরো পড়ুন:  মেমোরি কার্ড কেনার আগে অবশ্যই জানুন

যখন স্মার্ট হোমের প্রচলন বেড়ে যাবে তখন স্মার্ট প্লাগ হয়তো স্মার্ট হোমের আলাদা ডিভাইজ গুলোর সাথে এপিআই ব্যবহার করে কাজ করতে পাড়বে। যেমন ধরুন আপনার রুমের থার্মাল সেন্সর ডিটেক্ট করলো যে ঘরের তাপমাত্রা অনেক বেড়ে গেছে সেক্ষেত্রে স্মার্ট প্লাগ অন করে ফ্যান বা এসি চালু করে দিতে পাড়বে আবার সেগুলোকে বন্ধও করতে পাড়বে, লাইট সেন্সর দিন আর রাত ডিটেক্ট করে ঘরের আলো স্বয়ংক্রিয়ভাবে জ্বালাতে বা নেভাতে পাড়বে। তবে ট্রু স্মার্ট হোমে ডিভাইজ গুলো নিজে থেকেই অনেক স্মার্ট হবে, তবে যদি কথা বলি স্মার্ট প্লাগ নিয়ে তো সস্তায় এটি একটি গ্রেট সলিউশন হতে পারে।

ইমেজ ক্রেডিটঃ By SpeedKingz Via Shutterstock

তাহমিদ বোরহান

প্রযুক্তির জটিল টার্মগুলো কি আপনাকে বিভ্রান্ত করছে? কিছুতেই কি আপনার মস্তিষ্কে পাল্লা পড়ছে না? তাহলে বন্ধু, আপনি এবার সঠিক জায়গায় এসেছেন—কেনোনা এখানে আমি প্রযুক্তির সকল জটিল বিষয় গুলো ভাঙ্গিয়ে সহজ পানির মতো উপস্থাপন করার চেষ্টা করি, যাতে সকলে সহজেই সকল টেক টার্ম গুলো বুঝতে পারে।

2 comments